১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল -সাধ্যের মধ্যে অনেক কিছু

বাংলাদেশের মধ্যে যে সমস্ত কোম্পানির ফোন অধিক ব্যবহার হয় তার মধ্যে শাওমি একটি। বিশেষ করে কম বাজেটের ফোন গুলোর মধ্যে শাওমি অনেক ভালো সার্ভিস দিয়ে থাকে। তাই যারা বাজেট ফোন ব্যবহার করেন তারা অনায়াসে এই ফোনটি বেছে নিতে পারেন। আর এর জন্য আজ এই আর্টিকেল থেকে ১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল গুলো নিয়ে রিভিউ করার চেস্টা করবো।

আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন নিজ থেকেই শাওমি ব্রান্ডকে অনেক বেশী পছন্দ করে থাকেন। আর এই পছন্দের কারণ গুলোর মধ্যে রয়েছে সল্প বাজেটের ফোন গুলো অনেক ভালো সার্ভিস প্রদান করে থাকে।

সবারই একটি কথা সব সময় স্মরণ থাকা দরকার, ফোন হোক বা কম্পিউটার কেনার পূর্বে কি কনফিগারেশন রয়েছে সেটি দেখে নিতে হবে। দাম কোন বিষয় নয় কারণ বেশী বাজেটের ফোন গুলো যারা ব্যবহার করে তাদের মধ্যেই অনেকেই ভিডিও গেমস, ফটোগ্রাফি ইত্যাদি করে থাকে।

কিন্তু লো বাজেটের ফোন গুলো যারা ব্যবহার করে তাদের বিষয় একদম ভিন্ন কারণ তারা ফোন গুলো ক্যাজুয়ালি ব্যবহার করে থাকে। তাই নিজের বাজেট যেমনি হোক প্রথমেই ফোনের কনফিগারেশন দেখে নিতে হবে।

যেমন ফোনের ক্যামেরা, র‍্যাম, রম, প্রসেসর, চিপসেট, ব্যাটারি ইত্যাদি। দেখুন কম বাজেটের ফোন গুলোর মধ্যে এমন কিছু ফোন রয়েছে যেগুলোর কনফিগারেশন অনেক ভালো দেয়া থাকে যার কারনে আপনার উচিৎ হবে এই রিভিউটি ভালো ভাবে দেখতে কারণ যে সমস্ত ফোন গুলোর রিভিউ করবো তার মধ্যে ভিন্ন রকমের ফোন থাকবে।

তাহলে চলুন রিভিউ শুরু করি,

দেখুন ১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল গুলো

আমি আবার আপনাকে স্মরণ করিয়ে দেয়ার চেস্টা করছি, আপনার বাজেটের মধ্যে যে ফোনটি আপনার ভালো লাগবে অবশ্যই সেই ফোনটি ক্রয় করবেন। ফোনের নামের সাথে লিঙ্ক জুরে দেয়ে থাকবে আপনি চাইলে অনালিনেও অর্ডার করতে পারবেন।

আর হ্যা বাজেট একটু কম বেশীর মধ্যে হতে পারে। যেমন কিছু কিছু ফোনের দাম ১০ হাজার টাকার একটু বেশী হতে পারে। আর একটু বাজেট বাড়লে ভালো কোয়ালিটির ফোন পাওয়া যায়।

শাওমি পোকো সি৩ -Xiaomi Poco C3

১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল

১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল গুলোর মধ্যে না থাকলেও এই ফোনটি সম্পর্কে না বললে নয়।

শাওমির পোকো মডেলের ফোন গুলোর মধ্যে এটি একটি লো বাজেটের ফোন কিন্তু লো বাজেট হওয়ার পরেও এই ফোনটি সবার কাছেই একটি চাহিদা সম্পন্ন ফোন কারণ এই ফোনে এমন কোন ফিচার নেই যে দেয়া নেই।

আপনার যে সমস্ত ফিচার প্রয়োজন হবে সমস্ত ফিচার দেয়া রয়েছে এই ফোনটিতে যেমন এটিতে দেয়া র‍য়েছে ৪জি নেটওয়ার্ক এবং ডুয়াল ন্যান সিম কার্ড ইন্সার্ট করার মত সুবিধা। তাছাড়াও এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে Arctic Blue, Lime Green, Matte Black এই ধরণের কালার।

ডিস্প্লের দিকে খেয়াল করলে দেখা যায় এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে মিনিমাল নচ ডিসপ্লে যেটি বেশীরভাগ মানুষের চাহিদার শীর্শে থাকে। ডিস্প্লের সাইজ থাকছে 6.43 inches এবং যার রেজুলেশন থাকছে HD+ 720 x 1600 pixels তাছাড়াও ফিচার হিসাবে এটিতে আইপিএস টাচ স্ক্রিন এবং মাল্টি টাচ ফিচার যুক্ত করা আছে।

আর প্রটেকশনের জন্য পানডা গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে। এই ফোনে ব্যাক ক্যামেরা ব্যবহার হয়েছে Triple 13+2+2 Megapixel এবং সেলফি ক্যামেরা রয়েছে 5 Megapixel আর এই দুটি ক্যামেরা দিয়েই আপনি ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন।

ফোনটিতে অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার হয়েছে Android 10 এবং চিস্পেট রয়েছে MediaTek Helio G35 ও সাথে প্রসেসর Octa core, up to 2.3 GHz এর।

স্টোরেজ এর দিকে খেয়াল করলে দেখা যায় শাওমির এই ফোনে ব্যবহার হয়েছে দুই ভ্যারিয়েন্টের র‍্যাম 3 / 4 GB এবং রমের খেত্রেও একি বিষয় কারণ এটিতেও রয়েছে 32 / 64 GB এমনকি দেয়া আছে ডেডিকেটেড স্লট তাই চাইলেই আলাদাভাবে মেমোরি কার্ড/এসডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

চার্জিং এর জন্য এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে Lithium-polymer 5000 mAh (non-removable) ব্যাটারি এবং ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জার। সিকিউরিটির জন্য এই ফোনে দেয়া আছে ফেস আনলক।

ভালো এবং খারাপ দিক

ভালো দিকের কথা বলতে গেলেই প্রথমেই যে বিষয়টি আসে সেটি হল এই ফোনের স্টাইল এবং গেটাপ। এই দামের মধ্যে প্রিমিয়াম স্টাইল দেয়া রয়েছে। তাছাড়াও এই ফোনে রয়েছে দু ধরণের র‍্যাম ও রমের ব্যবহার তাই ফোনটির সাধারণ ফিচার ভালো হবে সেটি বলা বাহুল্য রাখেনা।

কালার, ডিসপ্লে সাইজ বেটার রয়েছে এবং সেই সাথে অপারেটিং সিস্টেম ও চিপ্সেট বেস্ট পারফর্ম করতে সক্ষম। সারাদিন চার্জ ব্যাকাপ দেয়ার জন্য ৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং চার্জ করার জন্য ফাস্ট চার্জার তো আছেই।

খারাপ দিক আমার কাছে কিছু নেই বললেই চলে কারণ এই বাজেটের মধ্যে যেটি রয়েছে পারফেক্ট রয়েছে। তাই চাইলেই আপনি এই ফোনটি একটু বাজেট বাড়িয়ে কিনতে পারেন।

এগুলো দেখতে পারেন,

অফিশিয়াল ✭৳১১,৪৯৯ ৩/৩২ GB
৳১২,৯৯৯ ৪/৬৪ GB

শাওমি রেডমি ১০এ -Xiaomi Redmi 10A

১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল

শাওমির এই ফোনটিতে মোট তিনটি কালার বিদ্যমান রয়েছে যেমন. Charcoal Black, Sea Blue, Slate Grey এবং অন্য সব ফোনের মতই এই ফোনে রয়েছে তিন প্রকারের নেটওয়ার্ক সুবিধা যার সর্ব শেষ আপডেট হছে ৪জি এবং ৪ জি ছাড়াও আগের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করার সুবিধা।

ফোনতিতে ব্যবহার করা যাবে ডুয়াল ন্যান সিম কার্ড। ফোনটিতে পাওয়া যাবে মিনিমাল নচ ৬.৫৩ ইঞ্চি আইপিএস টাচ স্ক্রিন ডিসপ্লে ও সাথে থাকবে মাল্টি টাচ ফিচার। এদিকে ফোনটির গ্লাস থাকছে গ্লাসের এবং ব্যাক সাইড ও বডি প্লাস্টিকের।

ডিস্প্লের রেজুলেশন থাকছে ৭২০*১৬০০ পিক্সেলের কিন্তু কোন প্রকার ডিসপ্লে প্রটেকশন ব্যবহার করা হয়নি এক্সট্রা ব্যবহার করতে হবে। শাওমির এই ফোনটিতে ব্যাক ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে ১৩ মেগা পিক্সেল এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে ৫ মেগা পিক্সেল এবং উভয় ক্যামেরা ব্যবহার করেই ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে।

এন্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেরমের সাথে এই ফোনে চিপ্সেট রয়েছে MediaTek Helio G25 এবং অক্টাকর প্রসেসর। এদিকে ফোনটিতে র‍্যাম বিদ্যমান রয়েছে ২জিবি এবং ৪জি ও সাথে রম রয়েছে ৩২জি এবং ৬৪জি আর সাথে ডেডিকেটেড স্লট রয়েছে আলাদাভাবে এসডি কার্ড ব্যবহার করার জন্য।

চার্জ ধারণ এর জন্য এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ৫০০০এমএএইচ ব্যাটারি ও ১০ ওয়াটের চার্জার। তাছাড়াও সিকিউরিটির জন্য এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেস আনলক। আর আপনি ফিঙ্গারপ্রিন্ট পেয়ে যাবেন ফোনের ব্যাক সাইডে।

ভালো এবং খারাপ দিক

ফোনটির দাম যেহেতু আপনার বাজেটের একটু বাইরে তার পরেও এই ফোনটি হতে পারে বেটার একটি অপশন হতে পারে কারণ এই ফোনে রয়েছে ৬.৫৩ ইঞ্চির হাই রেজুলেশন ডিসপ্লে সাথে মাল্টি টাচ ফিচার।

তাছাড়াও ফোনটিতে ৩টি কালার বিদ্যমান রয়েছে। এদিকে অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে এন্ড্রয়েড ১১ ও মিডিয়াটেকের চিপ্সেট যেটি ব্যবহার করে ফ্রিফায়ার এর মত গেমস খেলতে পারা যাবে।

ব্যাটারি এবং চার্জ উভয় বেস্ট কিন্তু আমার কাছে যে বিষয়টি খারাপ লেগেছে সেটি হচ্ছে এই ফোনের ক্যামেরা। দাম যেহেতু একটু বৃদ্ধি এবং র‍্যাম ও রমের পার্থক্য রয়েছে সেই অনুপাতে ক্যামেরা এর চাইতে আর বেশী উন্নত করা যেত।

তাছাড়া সব মিলিয়ে ফোনটি অনেক ভালই পারফর্ম করবে বলে আশা করা যায়।

অফিশিয়াল ✭৳১২,৪৯৯ ২/৩২ GB
৳১৪,২৯৯ ৪/৬৪ GB

শাওমি রেদমি ৯এ । Xiaomi Redmi 9a

১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল

কম বাজেটের জনপ্রিয় কয়েকটি ফোনের মধ্যে এই ফোনটি অনেকের নজর কেড়েছিল। তারই ধাঁরা বজায় রেখে এখন অব্দি এই ফোনের চাহিদা অনেক বেশী কারণ এই ফোনের ফিচার গুলো হাই বাজেটের ফোন গুলোর সাথে অনেক সাদৃশ্য পূর্ণ।

কারণ এই ফোনে রয়েছে ২জি, ৩জি এবং ৪জি নেটওয়ার্ক সুবিধা সাথে ডুয়াল সিম ব্যবহারের সুযোগ। ফোনটিতে রয়েছে মিনিমাল নচ ৬.৫৩ ইঞ্চির আইপিএস ডিসপ্লে যার রেজুলেশন থাকছে ১৬০০*৭২০ পিক্সেল।

সাথে রয়েছে আইপিএস টাচ স্ক্রিন যার রয়েছে মাল্টিটাচ ফিচার। শাওমির এই ফোনে রয়েছে ১৩ মেগা পিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা যেটি দিয়ে ১০৮০ মেগা পিক্সেলে ভিডিও ধারণ করা যাবে এবং সেলফি বা ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে ৫ মেগা পিক্সেল যেটি ব্যবহার করে ফুল এইডি ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও ধারণ করা যাবে।

ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে Android 10 এবং চিপ্সেট MediaTek Helio G25 সাথে অক্টাকর প্রসেসর।

এদিকে স্টোরেজ রয়েছে ২জিবির র‍্যাম এবং ৩২ জিবির রম এবং সাথে ডেডিকেটড স্লট দেয়া আছে এক্সট্রা মেমোরি কার্ড ব্যবহার করার জন্য। সিকিউরিটির দিক দিয়ে এই ফোনে রয়েছে ফেস আনলক। এই ছিল ফোনের বিষদ বর্নণা।

যদিও এই ফোন প্রথম রিলিজ হয়েছিল ২০২০ সালে কিন্তু এটি এখন বাজারে পাওয়া যায় কারণ ১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল তেমন বেশী মডেল বাজারে ছাড়েনি।

বিশেষ করে এই ফোনের চার্জ ব্যকাপের দিকে খেয়াল করে এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে লিথিয়াম পলিমারের ৫০০০ ওয়াট ব্যাটারি যেটি ব্যবহার করে অনায়াসে সারাদিন কাটিয়ে দেয়া যাবে।

ভালো এবং খারাপ দিক

ফোনটির ভালো দিকের কথা বলতে গেলে প্রথমেই যে কথাটি আসে সেটি হচ্ছে ১০ হাজার টাকার মধ্যে মোবাইল গুলোর মধ্যে যে ফিচার থাকা দরকার সমস্ত ফিচার এই ফোনে রয়েছে। যেমন এই ফোনের দাম অনুযায়ী র‍্যাম এবং রম ‍যথেষ্ট রয়েছে।

তাছাড়াও মিডিয়া টেকের চিপসেট ও অক্টাকর প্রসেসর রয়েছে যেটি ফোনকে হ্যাং হতে দিতে দিবেনা। আর যদি ক্যামেরা ও ডিস্প্লের কথা বলা হয় তাহলে বলবো কম দামের মধ্যে সেরাটাই আছে।

একটি কথা না বললেই নয় চার্জ করার জন্য এই ফোনে ১০ ওয়াট চার্জার দেয়া আছে। তাই বলা হয় সমস্ত কিছুই ভালো রয়েছে খারাপ বলার কোন অবকাশ নেই। তারপরেও এই ফোনটি অনেক আগে রিলিজ হয়েছে তাই বর্তমান সময়ের আপডেটের সাথে পাল্লা দিতে পারবেনা তাই ফোনটি কেনার পরেই ইন্টারনেট সংযোগ দিয়ে অপারেটিং সিস্টেম আপডেট করে নিতে হবে।

অফিশিয়াল ✭৳১০,৯৯৯ ২/৩২ GB

শাওমি রেডমি ৮এ -Xiaomi Redmi 8A

১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল

কম দামে ভালো ফোন গুলোর মধ্যে মধ্যে আপনি এই ফোনটি বেছে নিতে পারেন কারণ এই ফোনে দেয়া রয়েছে ২জি, ৩জি এবং ৪জি নেটওয়ার্ক সাথে ডুয়াল ন্যান সিম ব্যবহার করার মত সুযোগ।

এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে তিন ক্যাটাগরির কালার যেমন Midnight Black, Ocean Blue, Sunset Red তাই আপনার কাছে যেকোনো একটি কালার পছন্দ হতেই পারে।

শাওমি রেডমি ৮এ ফোনটিতে ডিসপ্লে রয়েছে ৬.২২ ইঞ্চির যার রেজুলেশন রয়েছে HD+ 720 x 1520 ও সাথে মিনিমাল নচ ডিস্প্লে যার ফিচার রয়েছে আইপিএস টাচ স্ক্রিন ও মাল্টি টাচ ফিচার।

শুধু তাই নয় এই ডিস্প্লের সাথে যুক্ত করা হয়েছে Corning Gorilla Glass 5 যেটি বিশেষ করে কম বাজেটের ফোন গুলোতে দেয়া থাকেনা।

এই ফোনে ব্যাক ক্যামেরা রয়েছে ডুয়াল ১২ মেগা পিক্সেল এবং সেলফি ক্যামেরা রয়েছে ৮ মেগা পিক্সেল আর এই ক্যামেরা দুটি দিয়েই ১০৮০ পিক্সেলে ফুল এইচডি মুডে ভিডিও ধারণ করা যাবে।

এদিকে ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে Android Pie v9.0 এবং চিপ্সেট রয়েছে Qualcomm Snapdragon 439 ও প্রসেসর এয়ছে Octa core, up to 1.95 GHz সাথে স্টোরেজ রয়েছে ২জি র‍্যাম এবং ৩২ জিবি রম।

চাইলেই এই ফোনে আলাদাভাবে এসডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে ২৫৬জিবির। এদিকে ফোনটির চার্জিং এর কনফিগারেশন দেয়া রয়েছে Lithium-polymer 5000 mAh (non-removable) ব্যাটারি চার্জ করার জন্য রয়েছে ১৮ ওয়াট চার্জার।

তাছাড়াও সিকিউরিটির জন্য এই ফোনে রয়েছে ফেস আনলক।

অন্যান্য ফিচার

ফোনটিতে রয়েছে ব্লুটুথ, ওয়াইফাই, হটস্পট, ইউএসবি টাইপ সি, ওটিজি এফএম, জিপিএস, লাউড স্পিকার ইত্যাদি।

ভালো এবং খারাপ দিক

রেডমির এই ফোনটি দাম অনুযায়ী সমস্ত কিছু ঠিকঠাক রয়েছে। ফোনটিতে ফুল এইচডি ডিস্পের সাথে এক্সট্রা কিছু ফিচার যুক্ত করা রয়েছে সেই সাথে ক্যামেরা অনেক ভালো রয়েছে আর বিশেষ করে যারা অনেক বেশী সেলফি তুলতে পছন্দ করেন তারা অনায়াসে ফোনটি কিনতে পারেন কারণ এই ফোনে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে।

সব মিলিয়ে ভালই রয়েছে কিন্তু ফোনটির মডেল একটু পুরাতন হওয়ার কারণে এই ফোনে অপারেটিং সিস্টেম এবং চিপ্সেট বর্তমান সময়ের জন্য পারফেক্ট নয়। তাও আপনি অনায়াসে চালিয়ে নিতে পারবেন।

শুধু এই ফিচার ছাড়া সমস্ত কিছু বেস্ট রয়েছে যেমন এই দামের মধ্যে ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি ও ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার পেয়ে যাচ্ছেন। চাইলে আপনি ফোনটি কিনতে পারেন।

এগুলো দেখতে পারেন,

অফিশিয়াল ✭৳১০,৯৯৯ ২/৩২ GB

শাওমি রেডমি ৭এ -Xiaomi Redmi 7A

১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল

১০ হাজার টাকার মধ্যে মোবাইল ফোন গুলোর মধ্যে এটি অনেক সুন্দর একটি ফোন কারণ এই ফোনটির ডিজাইন স্কয়ার আর এই ধরণের স্টাইল বা ডিজাইন অনেকের পছন্দ।

শাওমি রেডমি ৭এ ফোনটিতে আপনি পাচ্ছেন ২জি, ৩জি এবং ৪জি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট সাথে ডুয়াল ন্যান সিম কার্ড ব্যবহার করার মত সুবিধা।

Android Pie v9.0 অপারেটিং সিস্টেমের সাথে এই ফোনের মধ্যে Qualcomm Snapdragon 439 এর চিপ্সেট ব্যবহার করা হয়েছে ও প্রসেসর রয়েছে Octa core এর। এদিকে স্টোরেজ হিসাবে রয়েছে ২/৩জিবি র‍্যাম এবং ১৬/৩২জিজি রম। তাছাড়াও চাইলে আলাদাভাবে ডেডিকেটেড ২৫৬ জিবি পর্যন্ত এসডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

এদিকে ফোনটিতে ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে ৫.৪৫ ইঞ্চি যার রেজুলেশন তাহকছে HD+ 720 x 1440 ও সাথে রয়েছে আইপিএস টাচ স্ক্রিন ও মাল্টি টাচ ফিচার। ফোনটিতে ব্যাক ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে ১২ মেগা পিক্সেল এবং সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগা পিক্সেল আর দুটি ক্যামেরা ব্যবহার করেই ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও ধারণ করা যাবে।

চার্জিং এর জন্য এই ফোনে আপনি পেয়ে যাবেন Lithium-polymer 4000 mAh (non-removable) ব্যাটারি ও ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জার। সিকিউরিটি হিসাবে থাকছে ফেস আনলক।

ভালো এবং খারাপ দিক

সমস্ত বিষয় খেয়াল করলে দেখা যায় এই ফোনটি আপনি চাইলেই কিত্নে পারেন কারণ এই ফোনের যে ডিসপ্লে রয়েছে সেটি পারফেক্ট একটি ডিসপ্লে এর রেজুলেশন ও পারফেক্ট তাছাড়াও এই ফোনের র‍্যাম ও রম জেটিয়ার থাকার কথা ছিল সেটি ঠিকই রয়েছে।

তাছাড়াও ফোনের পারফর্মেন্স এর দিকে লক্ষ্য করে এই ফোনে যে ব্যাটারি রয়েছে সেটি পারফেক্ট আর সাথে তো ফাস্ট চার্জার আছেই।

বিশেষ করে এই ফোনে দুই ধরণের র‍্যাম এবং রম ব্যবহার হয়েছে তাই আশা অনুযায়ী এর ফিচার গুলো অনেক বেস্ট রয়েছে।

যদি খারাপের কথা বলা হয় তাহলে বলতে হবে এই ফোনটি বর্তমান সময়ের আপডেট ফোন গুলোর মত হবেনা কারণ অপারেটিং সিস্টেম ও চিপ্সেট আগের গুলোই রয়েছে কোন প্রকার আপদেত করা হয়নি।

আপনি চাইলে ফোনটি দেখে শুনে কিনতে পারেন। আর সুবিধা ও সুবিধা সমস্ত কিছু আপনাকে আমি আগে থেকেই জানিয়ে দিচ্ছি তাই আশা করছি আপনার তেমন কোন সমস্যা হবেনা।

অফিশিয়াল ✭৳১০,৪৯৯ ২/৩২ GB

শাওমি রেডমি ৬এ -Xiaomi Redmi 6A

শাওমি রেডমি ৬এ এক সময়ের সবচেয়ে চাহিদা সম্পন্ন একটি ফোন কারণ ফোনটির দাম অনুযায়ী স্টাইল এবং চলন সমস্ত কিছুই অনেক বেটার পারফর্ম করেছে তাই বাজারে আসার কিছু দিন পরেই ফোনটি স্টক আউট হয়ে যায়।

যদি মনে করেন বাজারে যে সমস্ত কম দামে ফোন রয়েছে সেগুলোর মধ্যে এটি বেস্ট একটি অপশন হতে পারে কারণ এই ফোনে রয়েছে ২জি,৩জি এবং ৪জি এই তিন ভ্যারিয়েন্টের নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা সাথে ডুয়াল ন্যানো সিম কার্ড ব্যবহার ও একটি সিমের পাশেই আলাদাভবে এসডি কার্ড ব্যবহার করার মত সুবিধা।

বিশেষ করে এই ফোনটি Black, Blue, Gold এই তিনটি কালারে পাওয়া যায়। এই ফোনের ডিসপ্লে রয়েছে 5.45 inches যার রেজুলেশন পাওয়া যায় D 720 x 1280 pixels এবং সাথে রয়েছে আইপিএস টাচ স্ক্রিন ও মাল্টি টাচ ফিচার।

এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ১৩ মেগা পিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা ও ৫ মেগা পিক্সেল সেলফি ক্যামেরা যেটি ব্যবহার করে ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও ধারণ করা যায়। আর হ্যা সেলফি ক্যামেরা ব্যবহার করে হাই কুয়ালিটি ভিডিও ধারণ করা যায়না।

ফোনটিতে অপারেটিং সিস্টেম দেয়া রয়েছে Android Oreo v8.1 যেটি পরবর্তিতে এন্ড্রয়েড ১১ তে আপডেট করা যাবে। এদিকে চিপ্সেট ব্যবহার করা হয়েছে MediaTek Helio A22 এবং প্রসেসর থাকছে Quad-core, 2.0 GHz এর।

শাওমির এই ফোনে র‍্যাম ব্যবহার করা হয়েছে ২ জিবি ও রম ব্যবহার করা হয়েছে ১৬জিবি যেটি ব্যাসিক কাজ গুলোর করার জন্য পারফেক্ট। Lithium-polymer 3000 mAh এর ব্যাটারি থাকছে ফোনটিতে কিন্তু কোন ফাস্ট চার্জার নেই কিন্তু তারপরেও অতি দ্রুত চার্জ উঠে যায় এই ফোনে।

ফোনটিতে সিকিউরিটির জন্য ব্যবহার করা হয়েছে ফেস আনলক ও সাধারণ সমস্ত লক যেমন পিন, প্যাটার্ন ইত্যাদি।

ভালো এবং খারাপ দিক

রেডমির এই ফোনটিতে যা কিছু আছে সমস্ত কিছুই আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছে কারণ এই দামের মধ্যে যে সমস্ত ফিচার গুলো দেয়ার দরকার সমস্ত কিছুই রয়েছে।

ক্যামেরা থেকে শুরু করে ডিসপ্লে সমস্ত কিছুই বেটার রয়েছে। র‍্যাম ও রম পারফেক্ট আছে সেই সাথে অপারেটিং সিস্টেম আপডেট করার মত অপশনতো রয়েছেই।

এখন যদি খারাপ দিকের কথা বলি তাহলে এই ফোনের ব্যাটারি তেমন বেশী সময় সার্ভিস দিতে সক্ষম নয়।

তাছাড়াও রম ১৬ এর পরিবর্তে ৩২ জিবি ব্যবহার করা যেত। এখন এই ফোন মার্কেটে নেই বললেই চলে তাছাড়াও আপনি যদি পছন্দ করে ফেলেন তাহলে ঢাকার মত যায়গায় খুজে দেখতে পারেন অথবা নিজের এলাকার কোন এক শপের মালিককে ব্যবস্থা করে দিতে বলতে পারেন আর যদি পাওয়া যায় তাহলে তো কোন কথাই নেই।

অফিশিয়াল ✭৳৮,৯৯৯ ২/১৬ GB

শাওমি রেডমি গো -Xiaomi Redmi Go

যারা শাওমির একদম লো বাজেটের ফোন কিনতে চান তাদের জন্য এই একটি মাত্র ফোন রয়েছে। আগেই বলে রাখছি আপনি শুধু এই ফোন ব্যবহার করে ইন্টারনেট ব্রাউক, কথা বলার মত কাজ করতে পারবেন।

ফেসবুক ব্যবহার করতে হলে লাইট ভার্সন ব্যবহার কতে হবে। আপনি এই ফোনে ২জি, ৩জি এবং ৪জি সব ধরনের নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা পেয়া যাবেন সেই সাথে ডুয়াল ন্যান সিম কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

ফোনটিতে ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে ৫ইঞ্চি এবং যার রেজুলেশন রয়েছে HD 720 x 1280 pixels ও ফিচার হিসাবে আইপিএস টাক স্ক্রিন ও মাল্টি টাচ ফিচার রয়েছে। এদিকে ফোনটিতে ব্যাক ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে ৮ মেগা পিক্সেল এবং এর ভিডিও ধারণ ক্ষমতা ১০৮০ পিক্সেলে সেই সাথে সেলফি ক্যামেরা রয়েছে ৫ মেগা পিক্সেল।

ফোনটিতে Lithium-ion 3000 mAh এর ব্যাটারি দেয়া রয়েছে। অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে Android Oreo v8.1 গো এডিশন ও চিপ্সেট রয়েছে Qualcomm Snapdragon 425 এর সাথে Quad-core, 1.4 GHz এর প্রসেসর।

র‍্যাম থাকছে ১ জিবি এবং রম রয়েছে ১৬জিবি। তাছাড়াও আপনি এই ফোনে আলাদাভাবে মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন।

ভালো এবং খারাপ দিক

এই ফোনের ভালো খারাপ বিবেচনা করার মত তেমন কিছুই নেই কারণ এই দামের মধ্যে যে সমস্ত ফিচার রয়েছে সেটি এই ফোনের জন্য বেস্ট। তাছাড়াও এই ফোনে সিকিউরিটির জন্য ফিঙ্গার প্রিন্ট বা ফেস আনলক কিছু দেয়া নেই।

আপনি যদি একদম কম দামের মধ্যে শাওমির ফোন কিনতে চান তাহলে কোন প্রকার বিবেচনা না করে কিনতে পারেন। কি কি রয়েছে সমস্ত কিছু আপনাকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

অফিশিয়াল ✭৳৭,৪৯৯ ১/১৬ GB

শেষ কথা

আপনি হয়ত ১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল গুলোর মধ্যে কোন কোন মোবাইল রয়েছে সেটি জেনে গিয়েছেন। শাওমি বা অন্য কোন মোবাইল সম্পর্কে আপনার যদি কোন প্রকার প্রশ্ন থেকে থাকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দেয়ার চেস্টা করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *